দেশে দুই-তিন বছর করোনা থাকবে: স্বাস্থ্য মহাপরিচালক

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনা সংক্রমণের মাত্রা কমে আসলেও আগামী দুই থেকে তিন বছর কিংবা তারও বেশি সময় এই ভাইরাস দেশে থাকবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) দুপুর আড়াইটায় করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে তিনি এসব কথা বলেন।

আবুল কালাম আজাদ বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী, এ ভাইরাস আগামী দুই থেকে তিন বছর পর্যন্ত থাকবে। তবে সংক্রমণের মাত্রা কমে আসবে। তবে পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ালে অনেক লুকায়িত এবং মৃদু উপসর্গের রোগী শনাক্ত হবে। তখন এটি চোখে নাও পরতে পারে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ জনবহুল ও ঘনবসতিপূর্ণ দেশ। করোনাভাইরাসও ছোঁয়াচে রোগ। যার কারণে সঠিকভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চললে সংক্রমণ ঠেকানো কঠিন। জীবন ও জীবিকার মধ্যে ভারসাম্য রাখার জন্য সরকার কাজ করে চলেছে। সরকারকে সাহায্য করতে হলে জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। অবহেলা, অসাবধানতা আপনারই ক্ষতি করবে।

সকল জেলা হাসপাতালে আইসিইউ, সেন্ট্রাল অক্সিজেন সরবরাহের কাজ সম্প্রাসারণ করা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, হাসপাতালগুলো হাই ফ্লো নোজাল কেনোলা, অক্সিজেন কনসেনট্রেটরসহ অন্যান্য সুবিধা দ্রুত সরবরাহের ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। একইসঙ্গে পরীক্ষার কিট ও পিপিইর যেন কোনও অভাব না হয় সেজন্য পরিকল্পিতভাবে সংগ্রহ ও সরবাহের পদ্ধতি গ্রহণ করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন তিন হাজার ৮০৩ জন। মৃত্যু হয়েছে আরও ৩৮ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৯৭৫ জন।