টুইটারের সবচেয়ে কঠিন দিন ছিল বুধবার: জ্যাক ডরসি

বড় ধরনের ধাক্কা খেলো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। একদিনে একই সঙ্গে হ্যাক হয়েছে পৃথিবীর নামিদামি বিভিন্ন ব্যক্তিদের।

বুধবার (১৫ জুলাই) এ ঘটনা ঘটেছে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসি জানায়, এদিন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট থেকে শুরু করে বড় বিলিওনিয়ার প্রযুক্তিবিদ, এমনকি তারকা শিল্পীও এই সাইবার হামলার শিকার হয়েছেন।

টুইটারের প্রধান নির্বাহী জ্যাক ডরসি বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) সকালে এক টুইট বার্তায় বলেন, টুইটারের জন্য সবচেয়ে কঠিন দিন। যা ঘটেছে তার জন্য আমরা সবাই বিপর্যস্ত। আমরা সবকিছু ঘেঁটে দেখছি এবং এ সংক্রান্ত তথ্য সবার সঙ্গে শেয়ার করা হবে। আসলে কী ঘটেছে এটি আমাদের আরও বেশি বোঝার দরকার আছে।

সাইবার হামলা থেকে বাদ যাননি বিখ্যাত সব প্রযুক্তি উদ্যোক্তরাও। হ্যাক হয়েছে মাইক্রোসফট সহপ্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস, আমাজনের প্রধান নির্বাহী জেফ বেজোস, টেসলা ও স্পেসএক্সের প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্কের অ্যাকাউন্টও।

টুইটার কর্তৃপক্ষ জানায়, এই সবই ভুয়া টুইট। কোনওভাবে প্রভাবশালীদের টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়ে গেছে। গোটা বিষয়টা গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে। খুব দ্রুত এই ত্রুটি মেরামত করে ফেলা হবে।

বিলিয়নিয়ার তারকা শিল্পী ক্যানি ওয়েস্ট ও তার স্ত্রী টিভি সেলেব্রিটি কিম কার্দাশিয়ানের অ্যাকাউন্টও হ্যাক করা হয়েছে। সম্প্রতি ক্যানি আসন্ন মার্কিন নির্বাচনে প্রার্থিতা ঘোষণা করেন। এমনকি প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপলের অ্যাকাউন্টও হ্যাক করা হয়েছে। কোনো বিটকয়েন জালিয়াতি চক্র তাদের সবার টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করেছে বলে জানা যায়।

ওবামা, বাইডেন, ক্যানির অফিশিয়াল অ্যাকাউন্ট থেকে ক্রিপ্টোকারেন্সিতে অনুদান দেয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়েছিল। বিল গেটসের অ্যাকাউন্টে বলা হয়, ‘আপনি যদি এক হাজার ডলার পাঠান, আমি আপনাকে দুই হাজার ডলার ফিরিয়ে দিব।’

সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ক কোম্পানি ক্রাউডস্ট্রাইকের সহপ্রতিষ্ঠাতা দিমিত্রি আলপেরোভিচ বলেন, কোনো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এটিই সবচেয়ে ভয়াবহ হ্যাকের ঘটনা।