টিকা পেতে Co-Win অ্যাপ নিয়ে সতর্ক করলেন বিশেষজ্ঞরা

ভ্যাকসিনের জন্য সাধারণ মানুষের রেজিস্ট্রেশনের সুযোগকে কাজে লাগিয়ে সক্রিয় হয়ে উঠেছে হ্যাকাররা। তাই খুব বুঝেশুনে পা ফেলতে হবে। হ্যাকারদের পাতা ফাঁদে পা দিলেই ফাঁস হয়ে যেতে পারে সমস্ত ব্যক্তিগত তথ্য।

ভারতে করোনার ভ্যাকসিন নিতে হলে সাধারণত Co-Win অথবা ‘আরোগ্য সেতু’ অ্যাপ থেকে রেজিস্ট্রেশন করাতে হয়। আধার কার্ড কিংবা অন্য কোনও পরিচয়পত্র দিয়ে বুক করতে হয় টিকাকরণ কেন্দ্র, ভ্যাকসিন নেওয়ার স্লট ইত্যাদি। আর এই প্রক্রিয়ার মধ্যেই বেআইনিভাবে ঢুকে পড়ে ইউজারদের ব্যক্তিগত তথ্য হাতাতে ওঁত পেতে বসে রয়েছে হ্যাকাররা।

সাইবার অপরাধীরা তাই একটি বিশেষ ফাইল তৈরি করেছে। সেই ফাইলের মাধ্যমেই মানুষকে রেজিস্টারের পরামর্শ দিচ্ছেন তারা। ইন্ডিয়ান কম্পিউটার ইমার্জেন্সি রেসপন্স টিম হ্যাকারদের এই কারসাজির কথা জানতে পারার পরই সবাইকে সতর্ক করছে। ভুয়া Co-Win অ্যাপ থেকে যেন কেউ রেজিস্টার না করেন। প্রশ্ন হল, কীভাবে বুঝবেন কোন Co-Win অ্যাপটি ভুয়া।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এসএমএসের মাধ্যমে ভুয়া অ্যাপের APK ফাইল ছড়িয় দেওয়া হচ্ছে। সেখান থেকেই অ্যাপ ইনস্টল করছেন অনেকে। আর তাতেই অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনে ঢুকে পড়ছে ম্যালওয়্যার। এর মাধ্যমেই কনটাক্ট লিস্টের পাশাপাশি নানা পাসওয়ার্ড চলে যাচ্ছে হ্যাকারদের দখলে। তাই এসএমএসের মাধ্যমে পাওয়া কোনও লিংক থেকে অ্যাপ ডাউনলোড না করে গুগল প্লে স্টোর থেকেই কেন্দ্রের তৈরি অ্যাপটি ইনস্টল করতে বলছেন তারা।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন।