জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

প্রকাশিত ফলাফলে অসন্তোষ জানিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৫-২০১৬ শিক্ষাবর্ষের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীরা। তারা বলছে, চতুর্থ বর্ষের ফাইনাল পরীক্ষার ফলাফলে তাদের সঠিক মূল্যায়ন হয়নি।

আজ বুধবার (১৮ আগস্ট) সকালে গাজীপুরের বোর্ডবাজার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন শুরু করেন।

শিক্ষার্থীদের দাবি, সশরীরে পরীক্ষা দিয়েও অনেক শিক্ষার্থীকে অনুপস্থিত দেখানো হয়েছে। অনেক শিক্ষার্থী চতুর্থ বর্ষের ১০টি কোর্সের মধ্যে ৯টিতে প্রথম শ্রেণী পেলেও তুলনামূলক সহজ বিষয়ে গণহারে অকৃতকার্য দেখানো হয়েছে। যেটি খুবই হতাশাজনক। পুনর্মূল্যায়নের দাবি জানান তারা।

২০১৫-২০১৬ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) চতুর্থ বর্ষ পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের ২০ জুলাই ২০২১ তারিখে ফলাফল প্রকাশিত হয়।

প্রকাশিত ফলাফলে ৭২ শতাংশ কৃতকার্য হয় এবং বাকি ২৮ শতাংশ শিক্ষার্থীকে অকৃতকার্য দেখানো হয়। উক্ত ২৮ শতাংশ অকৃতকার্য ফলাফল নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে তারা। উক্ত ফলাফলে ২৪ হাজারের বেশি শিক্ষার্থীকে এক বিষয়ে অকৃতকার্য দেখানো হয়েছে।

এর আগে, একই দাবি জানিয়ে গত বুধবার (১১ আগস্ট) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে এ বিক্ষোভ করেন শিক্ষার্থীরা।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কন্ট্রোলার বদরুজ্জামান জানান, ‘শতকরা ২৮ ভাগ ফেল করার বিষয়টি সঠিক নয়। কারণ এখানে অন্তত ১০ ভাগ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেয়নি।’