জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশনে ৩২ পদে চাকরি

জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের আওতাধীন ‘প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্র’ শীর্ষক প্রকল্পে অস্থায়ী ভিত্তিতে জনবল নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। আগ্রহী প্রার্থীদের নির্ধারিত আবেদন ফরম পূরণ করে ডাকযোগে আবেদনপত্র পাঠাতে হবে।

১. পদের নাম: থেরাপি সহকারী
পদসংখ্যা: ১২ (সাধারণ কোটায় ৪ জন, মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ৮ জন)
যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা: বিজ্ঞান বিভাগে এইচএসসি/সমমান পাসসহ সিএইচডিআরপি কোর্সসম্পন্ন হতে হবে। বিজ্ঞান বিভাগে এসএসসি/সমমান পাসসহ ডিপ্লোমা ইন ফিজিওথেরাপি কোর্সধারী প্রার্থীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। শিক্ষাক্ষেত্রে কোনো পর্যায়ে তৃতীয় শ্রেণি/বিভাগ বা ২.৫-এর নিচে জিপিএ গ্রহণযোগ্য হবে না।
বেতন: ১৭,৬৫০ টাকা (গ্রেড-১৩)
যেসব জেলার প্রার্থীর আবেদনের প্রয়োজন নেই: মানিকগঞ্জ, গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, জামালপুর, নেত্রকোনা, শেরপুর, চাঁদপুর, রাজশাহী, সিরাজগঞ্জ, নওগাঁ, নাটোর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, বগুড়া, রংপুর, গাইবান্ধা, লালমনিরহাট, নীলফামারী, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, খুলনা, মাগুরা, নড়াইল, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, কুষ্টিয়া, মেহেরপুর, বরিশাল, ভোলা, ঝালকাঠী, পিরোজপুর, বরগুনা ও পটুয়াখালী। তবে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য জেলা কোটা প্রযোজ্য নয়।

২. পদের নাম: টেকনিশিয়ান-১
পদসংখ্যা: ৩ (সাধারণ কোটা)
যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা: বিজ্ঞান বিভাগে এইচএসসি/সমমান পাস। অডিওমেট্রি বিষয়ে ডিপ্লোমা/সার্টিফিকেট কোর্সধারী প্রার্থীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। শিক্ষাক্ষেত্রে কোনো পর্যায়ে তৃতীয় শ্রেণি/বিভাগ বা ২.৫-এর নিচে জিপিএ গ্রহণযোগ্য হবে না।
বেতন: ১৭,৬৫০ টাকা (গ্রেড-১৩)
যেসব জেলার প্রার্থীর আবেদনের প্রয়োজন নেই: মানিকগঞ্জ, গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, জামালপুর, নেত্রকোনা, শেরপুর, চাঁদপুর, রাজশাহী, সিরাজগঞ্জ, নওগাঁ, নাটোর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, বগুড়া, রংপুর, গাইবান্ধা, লালমনিরহাট, নীলফামারী, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, খুলনা, মাগুরা, নড়াইল, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, কুষ্টিয়া, মেহেরপুর, বরিশাল, ভোলা, ঝালকাঠী, পিরোজপুর, বরগুনা ও পটুয়াখালী। তবে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য জেলা কোটা প্রযোজ্য নয়।

৩. পদের নাম: টেকনিশিয়ান-২
পদসংখ্যা: ৩ (সাধারণ কোটা)
যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা: বিজ্ঞান বিভাগে এইচএসসি/সমমান পাস। অপটোমেট্রি বিষয়ে ডিপ্লোমা/সার্টিফিকেট কোর্সধারী প্রার্থীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। শিক্ষাক্ষেত্রে কোনো পর্যায়ে তৃতীয় শ্রেণি/বিভাগ বা ২.৫-এর নিচে জিপিএ গ্রহণযোগ্য হবে না।
বেতন: ১৭,৬৫০ টাকা (গ্রেড-১৩)
যেসব জেলার প্রার্থীর আবেদনের প্রয়োজন নেই: মানিকগঞ্জ, গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, জামালপুর, নেত্রকোনা, শেরপুর, চাঁদপুর, রাজশাহী, সিরাজগঞ্জ, নওগাঁ, নাটোর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, বগুড়া, রংপুর, গাইবান্ধা, লালমনিরহাট, নীলফামারী, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, খুলনা, মাগুরা, নড়াইল, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, কুষ্টিয়া, মেহেরপুর, বরিশাল, ভোলা, ঝালকাঠী, পিরোজপুর, বরগুনা ও পটুয়াখালী। তবে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য জেলা কোটা প্রযোজ্য নয়।

৪. পদের নাম: অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক
পদসংখ্যা: ৫ (সাধারণ কোটা)
যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা: স্নাতক/সমমান ডিগ্রি থাকতে হবে। কম্পিউটার ডেটা এন্ট্রি, এমএস ওয়ার্ড ও এক্সেলে দক্ষতার সনদ থাকতে হবে।
বেতন: ১৫,৬৫০ টাকা (গ্রেড-১৬)
যেসব জেলার প্রার্থীর আবেদনের প্রয়োজন নেই: মানিকগঞ্জ, গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, জামালপুর, নেত্রকোনা, শেরপুর, চাঁদপুর, রাজশাহী, সিরাজগঞ্জ, নওগাঁ, নাটোর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, বগুড়া, রংপুর, গাইবান্ধা, লালমনিরহাট, নীলফামারী, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, খুলনা, মাগুরা, নড়াইল, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, কুষ্টিয়া, মেহেরপুর, বরিশাল, ভোলা, ঝালকাঠী, পিরোজপুর, বরগুনা ও পটুয়াখালী। তবে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য জেলা কোটা প্রযোজ্য নয়।

৫. পদের নাম: স্টাফ
পদসংখ্যা: ৫ (সাধারণ কোটা)
যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা: এসএসসি/সমমান পাস।
বেতন: ১৪,৪৫০ টাকা (গ্রেড-২০)
যেসব জেলার প্রার্থীর আবেদনের প্রয়োজন নেই: মুন্সিগঞ্জ, ফরিদপুর, রাজবাড়ী, শরীয়তপুর, জামালপুর, নেত্রকোনা, বান্দরবান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কুমিল্লা, খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি, রাজশাহী, সিরাজগঞ্জ, নওগাঁ, নাটোর, বগুড়া, রংপুর, দিনাজপুর, কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, নীলফামারী, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, খুলনা, ঝিনাইদহ, মাগুরা, নড়াইল, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, চুয়াডাঙ্গা, কুষ্টিয়া, মেহেরপুর, বরিশাল, ভোলা, ঝালকাঠী, পিরোজপুর, বরগুনা, পটুয়াখালী ও হবিগঞ্জ। তবে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য জেলা কোটা প্রযোজ্য নয়।

৬. পদের নাম: গার্ড
পদসংখ্যা: ৪ (সাধারণ কোটা)
যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা: এসএসসি/সমমান পাস।
বেতন: ১৪,৪৫০ টাকা (গ্রেড-২০)
যেসব জেলার প্রার্থীর আবেদনের প্রয়োজন নেই: মুন্সিগঞ্জ, ফরিদপুর, রাজবাড়ী, শরীয়তপুর, জামালপুর, নেত্রকোনা, বান্দরবান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কুমিল্লা, খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি, রাজশাহী, সিরাজগঞ্জ, নওগাঁ, নাটোর, বগুড়া, রংপুর, দিনাজপুর, কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, নীলফামারী, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, খুলনা, ঝিনাইদহ, মাগুরা, নড়াইল, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, চুয়াডাঙ্গা, কুষ্টিয়া, মেহেরপুর, বরিশাল, ভোলা, ঝালকাঠী, পিরোজপুর, বরগুনা, পটুয়াখালী ও হবিগঞ্জ। তবে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য জেলা কোটা প্রযোজ্য নয়।

বয়সসীমা
২০২২ সালের ৩১ মার্চ প্রার্থীর বয়স ১৮ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে। তবে শারীরিক প্রতিবন্ধী ও বীর মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের ক্ষেত্রে বয়স ৩২ বছর পর্যন্ত শিথিলযোগ্য।

আবেদন যেভাবে
আগ্রহী প্রার্থীদের সরকার নির্ধারিত চাকরির আবেদন ফরম ডাউনলোডের পর পূরণ করে পাঠাতে হবে। আবেদন ফরম জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করা যাবে। খামের ওপর পদের নাম ও নিজ জেলার নাম লিখতে হবে।

আবেদন ফি
আবেদনের সঙ্গে ব্যবস্থাপনা পরিচালক, জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন, ঢাকা বরাবর ১০০ টাকার অফেরতযোগ্য পোস্টাল অর্ডার করতে হবে।

আবেদনপত্রের সঙ্গে যেসব নথি জমা দিতে হবে

আবেদনপত্রের সঙ্গে জেলার স্থায়ী বাসিন্দার প্রমাণপত্র হিসেবে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান/পৌরসভার মেয়র/সিটি করপোরেশনের ওয়ার্ড কাউন্সিলর কর্তৃক প্রদত্ত সনদের সত্যায়িত ফটোকপি

জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত ফটোকপি

তিন কপি পাসপোর্ট সাইজের সত্যায়িত রঙিন ছবি

অভিজ্ঞতার সনদপত্র, নাগরিক সনদপত্র ও শিক্ষাগত যোগ্যতার সব সনদপত্রের সত্যায়িত ফটোকপি

প্রার্থীর নিজের নাম ও বর্তমান ঠিকানাসংবলিত ১০ টাকা মূল্যের ডাকটিকিট সংযুক্ত করে ৯ ইঞ্চি বাই ৪ ইঞ্চি সাইজের ফেরত খাম।

আবেদনপত্র পাঠানোর ঠিকানা: জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন, সুবর্ণ ভবন, এ/৪, সেকশন-১৪. মিরপুর, ঢাকা-১২০৬।

আবেদনের শেষ তারিখ: ৩১ মার্চ ২০২২