জর্ডান সরাসরি সাক্ষাৎকারে নেবে ৬০০ নারী কর্মী

সরকারিভাবে জর্ডানের ক্ল্যাসিক ফ্যাশন কোম্পানিতে ৪ মাসে ৬০০ জন বাংলাদেশি নারী পোশাককর্মী নেওয়া হবে। বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেডের (বোয়েসেল) ব্যবস্থাপনায় এসব কর্মী নেবে দেশটি। ইতিমধ্যে সাক্ষাৎকার গ্রহণ শুরু হয়েছে। আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রতি শুক্রবার সরাসরি সাক্ষাৎকার গ্রহণের মাধ্যমে কর্মী নিয়োগ দেওয়া হবে। চাকরি নিয়ে জর্ডান যেতে একজন কর্মীর খরচ হবে মাত্র ১ হাজার ২০০ টাকা।

বোয়েসেলের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, মেশিন অপারেটর পদে ৬০০ জন নারী কর্মী নেওয়া হবে। প্রার্থীদের সংশ্লিষ্ট কাজের অভিজ্ঞতা এবং বয়স ১৮ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে। মাসিক মূল বেতন ১২৫ জর্ডানি দিনার (১৮ হাজার ১৭৪ টাকা)। এ ছাড়া থাকা, খাওয়া ও চিকিৎসা ফ্রি। কর্মীদের আসা-যাওয়ার বিমানভাড়াও নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান দেবে। কর্মীদের জন্য বিমা-সুবিধাও রয়েছে।

দিনে আট ঘণ্টা ডিউটি। সপ্তাহে ছয় দিন কাজ করতে হবে। এক দিন সাপ্তাহিক ছুটি। এ ছাড়া ওভারটাইমের সুযোগ রয়েছে। ওভারটাইম করলে অতিরিক্ত বেতন রয়েছে। চাকরির চুক্তি তিন বছর। চুক্তি শেষ হওয়ার আগে দেশে ফিরতে চাইলে জর্ডানের শ্রম আইন প্রযোজ্য হবে। যাঁদের বিরুদ্ধে দেশে বা জর্ডানে মামলা আছে, তাঁরা নিয়োগের অযোগ্য হবেন।

বোয়েসেল সূত্রে জানা যায়, নির্বাচিত কর্মীদের বোয়েসেলের সার্ভিস চার্জ, বহির্গমন ট্যাক্স, সার্ভিস চার্জের ১৫% ভ্যাট, বোয়েসেলের নিবন্ধন ফি, স্মার্ট কার্ড ফি এবং ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ ফি বাবদ সব খরচ কোম্পানি দেবে। শুধু মেডিকেল ফি ১০০০ টাকা ও ফিঙ্গারপ্রিন্টের ফি ২০০ টাকা নির্বাচিত কর্মীদের দিতে হবে। অর্থাৎ জর্ডান যেতে একজন কর্মীর খরচ মাত্র ১ হাজার ২০০ টাকা।

বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেডের উপমহাব্যবস্থাপক নূর আহমেদ প্রথম আলোকে বলেন, ক্ল্যাসিক ফ্যাশন কোম্পানিতে কর্মী নিয়োগের জন্য আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রতি শুক্রবার সকাল সাড়ে সাতটায় মিরপুরের বাংলাদেশ-জার্মান কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে সরাসরি সাক্ষাৎকার নেওয়া হবে।

নূর আহমেদ আরও বলেন, প্রার্থীদের পাসপোর্ট সাইজের চার কপি রঙিন ছবি, মূল পাসপোর্ট, পাসপোর্টের ছবিযুক্ত অংশের এক সেট রঙিন ও চার সেট সাদাকালো ফটোকপি, প্রার্থীর বর্তমান অফিসের পরিচয়পত্র বা হাজিরা কার্ড, জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্মনিবন্ধন সনদ এবং শিক্ষাগত বা অভিজ্ঞতার সনদ থাকলে সঙ্গে

আনতে হবে। প্রার্থীদের জীবনবৃত্তান্ত আনার প্রয়োজন নেই।