চলতি মাসেও হচ্ছে না ৩৮তম বিসিএসের ফল

চলতি মাসেও ৩৮তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল প্রকাশ হচ্ছে না। আগামী জুলাই মাসের দ্বিতীয় বা তৃতীয় সপ্তাহে ৩৮তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল প্রকাশিত হতে পারে বলে সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পিএসসির এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা দ্যা রাইজিং ক্যাম্পাসকে জানান, গত মার্চেই ৩৮তম বিসিএস এর চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করার কথা ছিল। এজন্য ফল প্রকাশের প্রস্তুতিও নিয়েছিল পিএসসি। তবে করোনাভাইরাসের পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় তা আটকে গেছে।

তিনি আরও বলেন, গত ৩১ মে থেকে সরকার সীমিত পরিসরে অফিস চালু করার পর ফল প্রকাশের প্রস্তুতি শুরু হয়েছিল। তবে কোভিড-১৯ সংক্রমণের হার বিবেচনায় আগামীকাল (মঙ্গলবার) থেকে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন এলাকা তিনটি জোনে ভাগ হচ্ছে। এতে অনেক এলাকা লকডাউন থাকবে এবং ফলাফল প্রস্তুতের সাথে সংশ্লিষ্ট অনেক কর্মকর্তা অফিসে আসতে পারবেন না। তাই আপাতত ফল প্রকাশের কোন সম্ভাবনা নেই।

ওই কর্মকর্তা জানান, আগামী জুলাই মাসের মাঝামাঝি আমরা ফল প্রকাশের প্রস্তুতি নিয়েছি। আশা করছি এই সময়ের মধ্যে ফল প্রকাশ করতে পারবো। আমরাও চাই ফল প্রকাশ করতে। ফল প্রত্যাশীদের আরও একটু ধৈর্য ধরতে বলেন এই কর্মকর্তা।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ২৯ ডিসেম্বর ৩৮তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। গত বছরের ১ জুলাই ৩৮তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করে পিএসসি। এতে পাশ করেন ৯ হাজার ৮৬২ জন। গত বছরের ২৯ জুলাই থেকে মৌখিক পরীক্ষা শুরু হয়। চলতি বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি পরীক্ষা শেষ হয়েছে।

উল্লেখ্য, ৩৮তম বিসিএসের মাধ্যমে জনপ্রশাসনে ২ হাজার ২৪ জন ক্যাডার কর্মকর্তা নিয়োগ করার কথা ছিল। তবে এখন এই বিসিএসে ১৩৬ জন বেশি নিয়োগ পাবেন। এতে এই বিসিএসে মোট পদের সংখ্যা হচ্ছে ২ হাজার ১৬০।