গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা সেপ্টেম্বরের শেষে

দেশের করোনা পরিস্থিতি উন্নতি এবং চলমান লকডাউন তুলে নেওয়া হলে আগামী সেপ্টেম্বর মাসের শেষের দিকে ২০টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে। এর আগে আগস্ট মাসের মাঝামাঝি সময়ের মধ্যে প্রাথমিক সিলেকশনের ফল প্রকাশ করা হবে।

তবে সবকিছু নির্ভর করছে করোনার ওপর। চলমান করোনা পরিস্থিতি আরও অবনতি কিংবা বর্তমান অবস্থা বিরাজ করলে ভর্তি পরীক্ষা সেপ্টেম্বরের শেষেও আয়োজন করা যাবে না বলে জানিয়েছে আয়োজক কমিটির সংশ্লিষ্টরা।

আজ শুক্রবার (৩০ জুলাই) রাতে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত টেকনিক্যাল সাব কমিটির আহবায়ক ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর বলেন, সম্প্রতি কেন্দ্রীয় কমিটির সঙ্গে একটি সভা হয়েছিল। সেখানে প্রাথমিক সিলেকশনের ফল সাবমিট করলে তা অনুমোদন দেওয়া হয়। তবে এখনও ফল প্রকাশ সংশ্লিষ্ট একটি চুক্তি সম্পাদনা বাকি রয়েছে। এ কারণে ফল প্রকাশ করা যাচ্ছে না।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষার্থীদের ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড সর্ম্পকিত এই চুক্তিটি সম্পাদনা হয়ে গেলে আগস্টের মাঝামাঝি সময়ে প্রাথমিক সিলেকশনের ফল দিয়ে দিবো। এরপর চূড়ান্ত পর্যায়ের আবেদন নেওয়া শুরু হবে।

“আশা করছি, দেশের করোনা পরিস্থিতি উন্নতি হলে হয়তো সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে ভর্তি পরীক্ষা শুরু করতে পারবো। তবে দেশে বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি তেমন ভালো না। তারপরও আমরা সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে তার্গেট করে প্রস্তুতি নিচ্ছি। আশা করছি, তখন অবস্থা উন্নতি হবে।”

দেশের ২০টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ সেশনের এবার প্রথমবারের মতো গুচ্ছ ভিত্তিতে ভর্তি পরীক্ষা হতে যাচ্ছে। এর আগে গত ১৯ জুন মানবিক বিভাগের, ২৬ জুন বাণিজ্যের ও ৩ জুলাই বিজ্ঞান বিভাগের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছিল। তবে করোনার কারণে সেটি স্থগিত করে আয়োজক কমিটি।