খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ডিসিপ্লিনে (বিভাগ) স্বাস্থ্যবিধি মেনে সশরীর মাস্টার্স চূড়ান্ত পর্বের পরীক্ষা শুরু হয়েছিল। শিক্ষার্থীরা হলের বাইরে থেকেই এসব পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছিলেন। তবে খুলনা অঞ্চলে করোনার প্রাদুর্ভাব ব্যাপক হারে বেড়ে যাওয়ায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

আজ রোববার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দপ্তরের জারি করা অফিস আদেশের বরাত দিয়ে জনসংযোগ ও প্রকাশনা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক এস এম আতিয়ার রহমান জানান, খুলনা অঞ্চলে করোনার প্রাদুর্ভাব ব্যাপক হারে বেড়ে যাওয়ায় ২২ জুন থেকে খুলনা জেলায় সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষিত হয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে আজ বেলা সাড়ে ১১টায় উপাচার্য মাহমুদ হোসেনের সভাপতিত্বে সহ–উপাচার্য ও ডিনদের সঙ্গে জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ডিসিপ্লিনে (বিভাগ) অনুষ্ঠিতব্য সব পরীক্ষা স্থগিত রাখাসহ বেশ কয়েকটি সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের নবনিযুক্ত উপাচার্য মাহমুদ হোসেন গত ২৫ মে দায়িত্ব গ্রহণের পর ৩০ মে একাডেমিক প্রধানদের সভায় শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ইউজিসির নির্দেশনার আলোকে যেসব পরীক্ষা স্থগিত করা হয়, তাসহ সামগ্রিক বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। ওই সভায় কয়েকটি সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। তারই আলোকে নিজ নিজ ডিসিপ্লিনের উদ্যোগে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্টার্সের চূড়ান্ত পরীক্ষা গ্রহণ শুরু হয়।

১৩ জুন পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের মাস্টার্স চূড়ান্ত পর্বের পরীক্ষা গ্রহণ শেষ হয়েছিল। বিভিন্ন ডিসিপ্লিনের পরীক্ষা গ্রহণের তারিখ চূড়ান্ত করা হয়েছিল। কিছু ডিসিপ্লিন পরীক্ষা গ্রহণের প্রস্তুতি নিচ্ছিল।