কেন্দ্রীয় ওষুধাগারে আবারও বড় ধরনের রদবদল

বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ওষুধাগারে (সিএমএসডি) আবারও বড় ধরনের রদবদল করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির উপপরিচালক ডা. মো. জাকির হোসেন খানকে কক্সবাজার ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেলা সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক পদে বদলি করে কক্সবাজার ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেলা সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো. মহিউদ্দিনকে সিএমএসডির উপরিচালক পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও স্টোর কিপারসহ আরও তিনটি পদে রদবদল করা হয়েছে।

রোববার (৫ জুলাই) রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের উপসচিব শারমিন আক্তার জাহানের সই করা এক প্রজ্ঞাপনে এই বদলি আদেশ জারি করা হয়।

প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, স্টোর কিপার ডা. সাব্বির আহমেদকে সহকারী সার্জন হিসেবে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জের হাতিভাঙ্গা ইউনিয়ন সেন্টারে বদলি করা হয়েছে। কুমিল্লা জেলার মেঘনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা. রিয়াজুর রিয়াদকে সিএমএসডিতে ডেস্ক অফিসার পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। সিএমএসডির ফার্মাসিস্ট (গ্রাজুয়েট) হাবিবুল কিবরিয়াকে পরবর্তী পদায়নের জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে ন্যস্ত করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের ওএসডি থাকা ডা. মো. হাসান শাহরিয়ারকে সিএমএসডিতে সংযুক্ত করা হয়েছে বলেও জানানো হয় প্রজ্ঞাপনে।

এর আগে, ১৬ জুন সিএমএসডির সহকারী পরিচালক (প্রকিউরমেন্ট) ডা. মো. মেজবাহুর রহমানকে ওএসডি করে স্বাস্থ্য অধিদফতরে ন্যস্ত করা হয়। এছাড়াও আরও দুই কর্মকর্তাকে পরবর্তী পদায়নের জন্য স্বাস্থ্য অধিদফতরে ন্যস্ত করা হয়। একইসঙ্গে তিন জন কর্মকর্তাকে সিএমএসডিতে পদায়ন করা হয়।

উল্লেখ্য, ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম কোভিড-১৯ শনাক্ত হওয়ার পরে চিকিৎসকদের সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ নিয়ে আলোচনায় আসে সিএমএসডি। নিম্নমানের সুরক্ষা সামগ্রী সরবরাহের অভিযোগ ওঠে। এছাড়াও নকল এন৯৫ মাস্ক কেলেঙ্কারিও দেশব্যাপী আলোচিত হয়।

এরমধ্যেই গত ২৩ মে সিএমএসডি’র পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ শহীদ উল্লাহকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে ফিরিয়ে নেওয়া হয়। তার জায়গায় সিএমএসডি পরিচালক হিসেবে নিয়োগ পান বাংলাদেশ জাতীয় ইউনেস্কো কমিশনের ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল (অতিরিক্ত সচিব) আবু হেনা মোরশেদ জামান।