কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি অর্ধেকের বেশি করোনা রোগী মারা যাচ্ছে

রাজধানীর কুয়েত বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালের ইন্টেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) ভর্তি হওয়া রোগীদের অর্ধেকই মারা যাচ্ছেন। গত জানুয়ারি, ফেব্রুয়ারি, মার্চ ও এপ্রিল মাসে হাসপাতালটির আইসিইউতে ভর্তি হওয়া রোগীদের পরিসংখ্যান থেকে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, গত জানুয়ারি মাসে হাসপাতালটির আইসিইউতে ভর্তি হন ৪৩ জন। মারা যান ২২ জন। ফেব্রুয়ারিতে আইসিইউতে ভর্তি হন ৩৬ জন। মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন ২৪ জন। মার্চ মাসে আইসিইউতে ভর্তি হন ৫৪ জন। মারা যান ৩৭ জন। এপ্রিলে সব কিছু ছাপিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দ্বিগুণ হয়ে যায়। গত ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত আইসিইউতে ভর্তি হন ৮৪ জন। মারা যান ৬৬ জন। মারা যাওয়া রোগীদের ৯৯ শতাংশকেই আইসিইউতে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালটির আইসিইউ ইউনিটের দায়িত্বে থাকা সহকারী অধ্যাপক ও ক্রিটিক্যাল কেয়ারের বিভাগীয় প্রধান ডা. মো. আসাদুজ্জামান গণমাধ্যমকে বলেন, গতবার করোনা সংক্রমণ ছড়ানোর পরে আইসিইউতে ভর্তি হওয়া রোগীদের আমরা সহযোগিতা করতে পারতাম। তবে এবার পারছি না। এবার আইসিইউতে ভর্তি হওয়া মাত্রই রোগী মারা যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত বছর মার্চে দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ দেখা দেওয়ার পর কুয়েত বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালে কোভিড ডেডিকেডেট হাসপাতাল হিসেবে সেবা দেওয়া শুরু হয়।