কুবিতে ১০৪ আসন ফাঁকা, বাড়লো ভর্তির সময়সীমা

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) স্নাতক ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে একের পর এক মেধাতালিকা দিয়েও আসন ফাঁকা রয়েছে ১০৪ টি। যা বিশ্ববিদ্যালয়টির মোট আসনের ১০ ভাগ।

পূর্বঘোষিত নির্দেশনা অনুযায়ী ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত ভর্তি কার্যক্রম চলার কথা থাকলেও ফের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে। আগামী ১১ এপ্রিল পর্যন্ত ভর্তি কার্যক্রম চলবে বলে জানিয়েছেন ‘বি’ ইউনিটের আহবায়ক অধ্যাপক ড. এম. এম. শরীফুল করীম।

রেজিস্ট্রার দপ্তর সূত্রে জানা যায়, মোট ১০৪ টি আসনের মধ্যে ‘এ’ ইউনিটের ১১ টি আসন, ‘বি’ ইউনিটের ৮৪ টি আসন এবং ‘সি’ ইউনিটে ৯ টি আসন খালি রয়েছে। মূলত আসন ফাঁকা থাকায় কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা কমিটি আবারও ভর্তির সময়সীমা বৃদ্ধি করেছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের পূর্ব সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ৩০ মার্চের পর আর কোন মেরিট লিস্ট প্রকাশ করা হবে না বলে জানিয়েছিল প্রশাসন। আসন ফাঁকা থাকলেও ফাঁকা আসন নিয়েই শিক্ষা কার্যক্রম চলবে বলে সেসময় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তবে ১০ শতাংশের বেশি আসন ফাঁকা থাকায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন নতুন করে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানান অধ্যাপক ড. এম এম শরীফুল করীম।

তিনি বলেন, আসন ফাঁকা থাকায় ১১ এপ্রিল পর্যন্ত ভর্তির সময়সীমা বৃদ্ধি করা হয়েছে।

এদিকে আজ বুধবার (৩০ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের নবীন শিক্ষার্থীদের বরণ করে নিতে যাচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এতে নবীনবরণ থেকে বঞ্চিত হবেন নতুন ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীরা।

নবীনবরণের আয়োজক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র পরামর্শক ও নির্দেশনা কার্যালয়ের পরিচালক ড. মোহা. হাবিবুর রহমান বলেন, আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি তিনদিন আগে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সিদ্ধান্ত নিয়েছে সবেমাত্র। এছাড়া প্রতিটি বিভাগই নবীনবরণ করেছে। আমি একটা ট্রেন্ড চালু করতে চাই আজকের নবীনবরণের মধ্য দিয়ে যাতে করে প্রতি বছরই এটা চালু থাকে।