করোনা টিকা নেয়ার পর শরীরে আটকে যাচ্ছে লৌহজাত দ্রব্য

মহামারী করোনার দু’টি টিকা নেয়ার পর শরীরে চলে এসেছে চুম্বকত্ব। ঘটনাটি ঘটে ভারতের আগরতলার আগরতলার উত্তর বাধারঘাট এলাকায়। এলাকার বাসিন্দা মনোরঞ্জন রুদ্র পাল করোনাভাইরাসের দুটি টিকা নেয়ার পর তার শরীরে লৌহজাত দ্রব্য আটকে যাচ্ছে বলে দাবি করছেন। মনোরঞ্জন পেশায় একজন ব্যবসায়ী।

সম্প্রতি ভ্যাকসিনের দুইটি ডোজ নিয়েছেন। টিভিতে দেখেন ভ্যাকসিন নেওয়ার পর লোহার সামগ্রী আটকে যাচ্ছে দেখে তিনিও বাড়িতে তা করেন এবং দেখেন শরীরে লোহা আটকে যাচ্ছে। তার এলাকার আরো অনেকেই দুটো ডোজ নিয়েছেন কিন্তু তাদের শরীরে এভাবে আটকাচ্ছে না বলেও জানান তিনি। শারীরিক কোনো অসুবিধা বা অন্য ধরনের কোনো অনুভূতি বোধ করছেন কি? এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান কোনো সমস্যা বা আলাদা অনুভূতি বোধ করছেন না।

কৌতুহলী জনতা এখন তার বাড়িতে ভিড় জমাচ্ছেন নিজের চোখে এই ঘটনা দেখতে। তবে ভ্যাকসিনের কারণে এমনটা হচ্ছে বলে মানতে নারাজ চিকিৎসকরা।

আগরতলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসক ডা কনক চৌধুরী এই বিষয়ে মানুষের মধ্যে তৈরি হওয়া অহেতুক কৌতূহল এবং ক্লান্তি দূর করতে লিখেছেন-

‘চুম্বক ক্ষেত্র টেসলা আর কোভিড ভ্যাক্সিন…

আমাদের পৃথিবীতে সৃষ্টির শুরু থেকেই চুম্বকীয় ক্ষেত্র বিরাজমান। আমাদের শরীরেও তাই। দেহের প্রতিটি কোষ অব্দি। আমাদের ঘরের কারেন্টের তার, গ্রাইন্ডার মেশিন, চুল শুকানোর যন্ত্র ইত্যাদির পাশে ইলেকট্রনের প্রবাহ যেমন থাকে, তেমনি থাকে চুম্বকীয় ক্ষেত্র। আমাদের শরীরে প্রায় ০.১ মাইক্রোটেসলা ম্যাগনেটিক ফিল্ড তৈরি হয়, কম আর বেশি। এর সঙ্গে কোনো ক্ষতিকর প্রভাব জড়িত নয়।

খুব ভালো ভাবে মনে রাখুন, কোভিড ভ্যাক্সিন এ কোনো মেটাল বা ধাতু, নিকেল, কোবাল্ট অথবা কোনো আকরিক থাকে না। সাধারণত থাকে দুর্বল বা মৃত ভাইরাসের নিষ্ক্রিয় অংশ, সজঘঅ, পটাশিয়াম ক্লোরাইড, লিপিডস, মনো বেসিক পটাসিয়াম ফসফেট, সোডিয়াম ক্লোরাইড, ডাই বেসিক সোডিয়াম ফসফেট ডাই হাইড্রেট এবং সুক্রোজ। এর মধ্যে কোনো ব্যাক্তিকে চুম্বকে পরিণত করার মতো কিছু পেলেন?

কেউ যদি সম্পর্ক খুঁজে পান, তাকে বা তাদেরকে বৈজ্ঞানিক গবেষণায় অর্পণ করা হোক। ওই ব্যক্তির জন্যেও ভালো হবে। এমনটা হবার অন্য কোনো বিজ্ঞান সম্মত কারণ খুঁজে বের করার চেষ্টা চলতেই পারে। কিন্তু টিকাকরণের সঙ্গে কোনো চুম্বকের টানাটানি করবেন না দয়া করে।

দেশের কিছু কিছু জায়গায় এই ধরনের খবর বা গুজব ছড়ানোটা কি ইচ্ছাকৃত না-কি মজাক, সেটাই এখন দেখার!

গুজবের চুম্বক না আবার গণেশ এর দুধের টানে এগিয়ে যায়, আমার সমাজে, এই ভয়। গুজব ছড়াবেন না। কোভিড টিকা নিরাপদ। টিকা অত্যন্ত জরুরি।’