করোনার ধকল নিয়ে পরীক্ষায় বসছে চীনের কোটি শিক্ষার্থী

চীনে করোনার বিস্তারের কারণে প্রায় এক মাস বিলম্বের পর আজ বার্ষিক কলেজ প্রবেশিকা পরীক্ষা শুরু হয়েছে। করোনার ধকল নিয়ে চীনের প্রায় ১ কোটি ১০ লাখ শিক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

এই পরীক্ষা হবে দুই দিন। যেসব মা–বাবা তাঁদের সন্তানদের বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ানোর স্বপ্ন দেখেন, তাঁরা এই পরীক্ষাকে অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে থাকেন। এতে এমন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে এই পরীক্ষা নিয়ে একধরনের উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা কাজ করে।

পরীক্ষার পরিদর্শকদের দায়িত্ব এবার বেড়ে গেছে। এবার নকল ঠেকানোর পাশাপাশি পরীক্ষার্থীদের জ্বরও তাঁদের দেখতে হবে। পরীক্ষা গ্রহণের জন্য চীনজুড়ে সাত হাজারের বেশি পরীক্ষাকেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। এসব পরীক্ষাকেন্দ্রে ১০ লাখের বেশি পরিদর্শক বা অন্য তদারক কর্মী দায়িত্ব পালন করবেন।

চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, কোনো পরীক্ষার্থী পরীক্ষার হলে নকল করে কি না, তা দেখবেন এই পরিদর্শকেরা। একই সঙ্গে তাঁরা দেখবেন, কোনো পরীক্ষার্থীর জ্বর বা কাশি আছে কি না।

করোনার উপসর্গ থাকলে সংশ্লিষ্ট পরীক্ষার্থীকে আইসোলেশন কক্ষে নেওয়া হবে। সেখানে বসেই সে পরীক্ষায় অংশ নেবে। অতি ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সময় মাস্ক পরতে হবে।