একমাত্র ঈশ্বরই পারে আমাকে ক্ষমতা থেকে সরাতে

ব্রাজিলের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার দেশটির ডানপন্থী প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারোর পক্ষে রাস্তায় মিছিল লাখ লাখ মানুষ। তাঁরা ব্রাজিলের সুপ্রিম কোর্টের বিচারদের পদত্যাগ দাবি করেছেন।
এই মিছিলে অংশ নিয়ে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো বলেন, একমাত্র ঈশ্বরই আমাকে ক্ষমতা থেকে সরাতে পারে।

বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়, বলসোনারোর পক্ষে সবচেয়ে বড় মিছিল হয়েছে ব্রাজিলের সাও পাউলো শহরে। সেখানেই বক্তব্য রাখেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট। ওই মিছিলে প্রায় ১ লাখ ১৪ হাজার মানুষ অংশ নেয় বলে জানিয়েছে স্থানীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

সাও পাউলোর মিছিলে অংশ নিয়ে ব্রাজিলের ভোট ব্যবস্থার সমালোচনাও করেন বলসোনারো। তবে এর পক্ষে কোনো প্রমাণ দিতে পারেননি তিনি।

বলসোনারোর পক্ষে মিছিলে অংশ নিতে সাও পাউলো শহরে এসেছিলেন কার্লোস আলবার্তো জুলিয়াও। ব্রাজিলের আদালতকে উদ্দেশ্য করে ৪৫ বছর বয়সী এই ব্যক্তি বলেন, তাঁরা চোরদের ছেড়ে দেয় এবং রক্ষণশীলদের গ্রেপ্তার করেন।

২০২২ সালে ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। ওই নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং পদ্ধতির ব্যবহার নিয়ে চরম আপত্তি রয়েছে বলসোনারোর। এ কারণে আগামী নির্বাচনে ফল প্রত্যাখ্যান করার হুমকিও দিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি ব্যালট পেপারের মাধ্যমে ভোট গ্রহণের দাবি তুলে আসছেন। বলসোনারোর ভাষ্য, ইলেকট্রনিক ব্যালট ভোট কারচুপির কারণ হতে পারে।

২০১৯ সালে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে বিভিন্ন বিষয়ে বিতর্কিত হয়েছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো। সম্প্রতি করা বিভিন্ন জরিপে দেখা গেছে ব্রাজিলে তাঁর গ্রহণযোগ্যতা ২৫ শতাংশের কম। বিশেষ করে আমাজন বনে আগুন লাগা নিয়ে তার বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগ রয়েছে। এ ছাড়া করোনা ভ্যাকসিন জালিয়াতিসহ নানা অভিযোগ আছে তাঁর বিরুদ্ধে।