একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হয়ে সরকার গড়বে বিজেপি, জানাল সাট্টা বাজার

পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচন নিয়েও জুয়াড়িরা সরগরম করে তুলেছেন ভারতের সাট্টা বাজার। রাজ্যটিতে বিজেপি এবার একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হয়ে সরকার গড়ছে বলে জানিয়েছে তারা।

মুম্বাই ও রাজস্থানের ফালুদি সাট্টা বাজারের হিসাবমতে, এবারে বিজেপি ১৯১ থেকে ১৯২টি আসন পেয়ে একাই সরকার গড়বে। মমতা বন্দোপাধ্যায়ের তৃণমূল কংগ্রেস পাবে ৮৫ থেকে ৯৩টি আসন।

ভারতের ভোটের রাজনীতিতে সাট্টা বাজারের মূল্যায়নকে অনেকেই গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। এর আগে বহু নির্বাচনের আগাম ফল বলে কৃতিত্ব দেখিয়েছে এই বাজার।

তাদের হিসাবমতে, গত বিধানসভায় তৃণমূল কংগ্রেস ২১৪টি আসন পেয়েছিলো। এবার তারা বিপর্যয়ের কবলে পড়ে ১২৯টি আসন হারাবে। কংগ্রেস-সি পি এম-আই এস এফ জোট পাবে ১৫ থেকে ২০টি আসন।

দেশের বৃহত্তম দুই সাট্টা বাজারের এমন মূল্যায়নে বিজেপি শিবিরে বেশ উৎসব চলছে। যদিও তৃণমূল কংগ্রেস এই ফল ঘোষণাকে উদ্দেশ্যপ্রনোদিত ও ভোটারদের প্রভাবিত করার অপচেষ্টা বলে দাবি করছে।

এদিকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে ফোন ট্যাপ করার অভিযোগ তুলে তার পদত্যাগ দাবি করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

শীতলকুচি নিয়ে তার ফোনের কথোপকথন কিভাবে ট্যাপ হল জানতে সিআইডিকে তদন্তের নির্দেশ দেবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

শনিবার মমতা বলেন, আমার ফোন কল ট্যাপ করায় মদদ দিয়েছেন মোদি। তাই তিনি নিজের ভাষণে তার উল্লেখ করেছেন। মানুষ ব্যাপারটা বুঝে গেছে।

এরপরই প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করে মমতা বলেন, তাহলে প্রধানমন্ত্রী, আপনি আমার ফোন ট্যাপ করেছেন। লজ্জা করে না। প্রধানমন্ত্রী থেকে পদত্যাগ করুন। তারপরে মানুষকে মুখ দেখাবেন। আপনার লজ্জা করে না একজন মুখ্যমন্ত্রীর ফোন ট্যাপ করতে।