এইচএসসি পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত হয়নি: শিক্ষা মন্ত্রণালয়

এইচএসসি পরীক্ষাও বাতিল হতে পারে’ এমন গুজব ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র। সামাজিক যোগাযোগামাধ্যম তো বটেই, অনেক গণমাধ্যমও লিখছে, পাবলিক পরীক্ষাটি ‘বাতিলের সম্ভবনা আছে’।

বিষয়টি খোলাসা করেছে মন্ত্রণালয়। শুক্রবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অফিসিয়াল ভেরিফায়েড পেজে বলা হয়েছে, এইচএসসি পরীক্ষা বাতিল করার মত কোন সিদ্ধান্ত শিক্ষা মন্ত্রনালয় নেয়নি। মন্ত্রণালয়ের তথ্য কর্মকর্তা এম এ খায়ের এই তথ্য জানান।

এর আগে বৃহস্পতিবার এই পরীক্ষা নিয়ে একটি উচ্চপর্যায়ের ভার্চুয়াল বৈঠক হয়। সেখানে তিনটি বিকল্প প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা হয়। পরীক্ষা না নেওয়া গেলে বিকল্প হিসেবে স্বল্পপরিসরে পরীক্ষাটি নেওয়ার প্রস্তাব আসে। এছাড়া শিক্ষার্থীর জেএসসি-এসএসসি এবং কলেজের প্রথম ও দ্বিতীয় বর্ষের মূল্যায়নের ওপর ফলাফল (গ্রেড) ঘোষণার বিষয়টিও আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে। প্রয়োজনে আগামী বছরের মার্চ পর্যন্ত এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার জন্য অপেক্ষার প্রস্তাবও বৈঠকে এসেছে।

অন্যদিকে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষার পন্থা ঠিক করতে ‘ইনোভেশন টিম’ গঠন করা হয়েছে। তারা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে পরবর্তী ক্লাসে উত্তীর্ণের বিষয়ে মূল্যায়ন পদ্ধতির বিষয়ে প্রস্তাব তৈরি করবে। টিমে মাউশি, ঢাকা শিক্ষা বোর্ড এবং এনসিটিবি কর্মকর্তারা আছেন।