উপ-উপাচার্য নেই ৭৭ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে

দেশে বেসরকারি উদ্যোগে গড়ে ওঠা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা ১০৮টি। এর মধ্যে ৭৭টি বিশ্ববিদ্যালয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গুরুত্বপূর্ণ পদ হিসেবে পরিচিত উপ-উপাচার্য নেই।

সম্প্রতি উপাচার্য, উপ-উপাচার্য ও ট্রেজারার নেই এমন বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা প্রকাশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর তদরকি সংস্থা বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি)। প্রকাশিত তালিকা থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

ইউজিসি সূত্রে জানা গেছে, উপ-উপাচার্যের পদটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই পদে নিয়োগের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে বারবার তাগিদ দেওয়ার পরও সংশ্লিষ্টরা এই পদে নিয়োগ না দিয়ে বোর্ড অব ট্রাস্টিজের (বিওটি) সদস্যরা নিজেদের মতো করে পরিচালনা করছেন। এতে শিক্ষার্থীরা তাদের কাঙ্খিত সেবা পাওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। একই সাথে গুরুত্বপূর্ণ অনেক সিদ্ধান্ত নিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে।

সূত্র আরও জানায়, ইউজিসির তাগাদা পেয়ে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো উপ-উপাচার্য নিয়োগের জন্য নির্বাচিত প্রার্থীদের তালিকা জমা দিয়েছেন। তবে বিভিন্ন কারণে সেই নিয়োগগুলো আটকে রয়েছে। দ্রুত শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে নিয়োগের প্রজ্ঞাপন জারি হলে এই সংকট কেটে যাবে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ইউজিসি সদস্য অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ বলেন, ভিসি, প্রো-ভিসি এবং ট্রেজারার না থাকা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে আমরা দ্রুত সময়ের মধ্যে নিয়োগ দিতে চিঠি পাঠিয়েছি। অনেক বিশ্ববিদ্যালয় ইচ্ছাকৃতভাবে এই পদগুলো ফাঁকা রাখে। কেননা এই পদগুলো ফাঁকা থাকলে ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্যরা বিশ্ববিদ্যালয়ের পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ নিতে পারেন।

যে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে উপ-উপাচার্য আছে
নর্থ সাউথি বিশ্ববিদ্যালয়, ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি, ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এগ্রিকালচার অ্যান্ড টেকনোলজি, আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, আহছানউল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিক, গণ বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটি, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটি, স্টেট ইউনিভার্সিটি, নর্দান ইউনিভার্সিটি, গ্রীণ ইউনিভার্সিটি, পুন্ড্র ইউনিভার্সিটি, ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলজি, প্রেসিডেন্সি ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অব ইনফরমেশন সায়েন্সেস অ্যান্ড টেকনোলজি, ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস, বরেন্দ্র ইউনিভার্সিটি, হামদর্দ ইউনিভার্সিটি, বিজিএমইএ ইউনিভার্সিটি অব ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজি, সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটি, নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অব ক্রিয়েটিভ টেকনোলজি, ইউনিভার্সিটি অব গ্লোবাল ভিলেজ।

ইউজিসির তালিকায় থাক ১০৮টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ইবাইস বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টিজের দ্বন্দের কারণে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো তথ্য নেই। এছাড়া কুইন্স ইউনিভার্সিটি সরকার কর্তৃক বন্ধকৃত। এই বিশ্ববিদ্যালয়কে শর্ত সাপেক্ষে এক বছরের সাময়িক শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার অনুমতি দেওয়া হলেও তারা কার্যক্রম শুরু করতে পারেনি।