The Rising Campus
News Media
বৃহস্পতিবার, ২রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩

ইবি থেকে গবেষণায় অনুদান পাচ্ছেন যারা

ইমন, ইবিঃ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ১২জন শিক্ষক ২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় কর্তৃক ‘বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি’ বিষয়ে বিশেষ গবেষণা প্রকল্প অনুদানের জন্য মনোনীত হয়েছেন। মনোনীত শিক্ষকরা তাদের প্রকল্প অনুযায়ী দুই থেকে সর্বোচ্চ পাচ লাখ টাকা পর্যন্ত আর্থিক সহায়তা পাবেন।

বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে গত ১৫ নভেম্বর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে মন্ত্রণালয়ের উপসচিব বিদ্যুৎ চন্দ্র আইচ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে গবেষণা অনুদানে মনোনীত শিক্ষকদের তালিকা প্রকাশ করা হয়।

বিজ্ঞপ্তি সূত্রে, মন্ত্রণালয়ের অধীনে ‘বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি কর্মসূচি’র খাত থেকে মোট ৬৮২টি গবেষণা প্রকল্পের অনুদানে নির্বাচিত গবেষকদের নামসহ বিজ্ঞপ্তিতে প্রকাশ করা হয়। এতে ইবি থেকে বিভিন্ন বিভাগের মোট ১২জন শিক্ষক বায়োলজিক্যাল সায়েন্স, ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড অ্যাপ্লাইড সায়েন্স, ইন্টার-ডিসিপ্লিনারি, মেডিকেল সায়েন্স ও ফিজিক্যাল সায়েন্স গ্রুপ গবেষণায় নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচিত গবেষকদের গ্রুপসমূহ যথাক্রমে আড়াই লাখ, দুই লাখ, আড়াই লাখ, পাঁচ লাখ এবং তিন লাখ করে অর্থ অনুদান পাবেন।

বায়োলজিক্যাল সায়েন্স গ্রুপে নির্বাচিত ইবি শিক্ষকরা হলেন- বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলাম, সহযোগী অধ্যাপক ড. খসরুল ইসলাম; অধ্যাপক ড. একেএম নাজমুল হুদা ও সহকারী অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর আলম। ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড অ্যাপ্লাইড সায়েন্স গ্রুপে গণিত বিভাগের অধ্যাপক ড. আসাদুজ্জামান ও বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক খাইরুল ইসলাম। ইন্টার-ডিসিপ্লিনারি গ্রুপে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ইব্রাহিম আব্দুল্লাহ ও সহযোগী অধ্যাপক ড. হাবিবুর রহমান। মেডিকেল সায়েন্স গ্রুপে বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. সুধাংশু কুমার বিশ্বাস ও বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এস এম জহুরুল ইসলাম। ফিজিক্যাল সায়েন্স গ্রুপে ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আব্দুল্লাহ আল-মাসুদ এবং ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ইফফাত আ’রা নির্বাচিত হয়েছেন।

মনোনীত গবেষক বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলাম বলেন, এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত গৌরবের একটা বিষয়। আমরা এটা নিয়ে খুবই আনন্দিত। আমাদের মোট ১২জন শিক্ষক ৬টি প্রজেক্টের আওতায় কাজ করবেন। এতে একজন প্রধান গবেষক এবং তার সঙ্গে একজন সহকারী গবেষক হিসেবে কাজ করবেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান বলেন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের জন্য এটা অনেক ভালো একটা খবর। যে শিক্ষকরা নির্বাচিত হয়েছেন তাদেরকে অভিনন্দন। আমাদের শিক্ষকরা সামনে যেন আরো বেশি বেশি এরকম গবেষণার জন্য মনোনীত হন সেই প্রত্যাশা করি।
উল্লেখ্য, ১৯৭৭-৭৮ অর্থবছর থেকে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের অধীনে ‘বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি’ বিষয়ক গবেষণার জন্য এ অনুদান প্রদান কার্যক্রম শুরু হয়।

0
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. হোম
  2. ক্যাম্পাস
  3. ইবি থেকে গবেষণায় অনুদান পাচ্ছেন যারা

ইবি থেকে গবেষণায় অনুদান পাচ্ছেন যারা

ইমন, ইবিঃ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ১২জন শিক্ষক ২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় কর্তৃক ‘বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি’ বিষয়ে বিশেষ গবেষণা প্রকল্প অনুদানের জন্য মনোনীত হয়েছেন। মনোনীত শিক্ষকরা তাদের প্রকল্প অনুযায়ী দুই থেকে সর্বোচ্চ পাচ লাখ টাকা পর্যন্ত আর্থিক সহায়তা পাবেন।

বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে গত ১৫ নভেম্বর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে মন্ত্রণালয়ের উপসচিব বিদ্যুৎ চন্দ্র আইচ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে গবেষণা অনুদানে মনোনীত শিক্ষকদের তালিকা প্রকাশ করা হয়।

বিজ্ঞপ্তি সূত্রে, মন্ত্রণালয়ের অধীনে ‘বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি কর্মসূচি’র খাত থেকে মোট ৬৮২টি গবেষণা প্রকল্পের অনুদানে নির্বাচিত গবেষকদের নামসহ বিজ্ঞপ্তিতে প্রকাশ করা হয়। এতে ইবি থেকে বিভিন্ন বিভাগের মোট ১২জন শিক্ষক বায়োলজিক্যাল সায়েন্স, ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড অ্যাপ্লাইড সায়েন্স, ইন্টার-ডিসিপ্লিনারি, মেডিকেল সায়েন্স ও ফিজিক্যাল সায়েন্স গ্রুপ গবেষণায় নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচিত গবেষকদের গ্রুপসমূহ যথাক্রমে আড়াই লাখ, দুই লাখ, আড়াই লাখ, পাঁচ লাখ এবং তিন লাখ করে অর্থ অনুদান পাবেন।

বায়োলজিক্যাল সায়েন্স গ্রুপে নির্বাচিত ইবি শিক্ষকরা হলেন- বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলাম, সহযোগী অধ্যাপক ড. খসরুল ইসলাম; অধ্যাপক ড. একেএম নাজমুল হুদা ও সহকারী অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর আলম। ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড অ্যাপ্লাইড সায়েন্স গ্রুপে গণিত বিভাগের অধ্যাপক ড. আসাদুজ্জামান ও বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক খাইরুল ইসলাম। ইন্টার-ডিসিপ্লিনারি গ্রুপে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ইব্রাহিম আব্দুল্লাহ ও সহযোগী অধ্যাপক ড. হাবিবুর রহমান। মেডিকেল সায়েন্স গ্রুপে বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. সুধাংশু কুমার বিশ্বাস ও বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এস এম জহুরুল ইসলাম। ফিজিক্যাল সায়েন্স গ্রুপে ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আব্দুল্লাহ আল-মাসুদ এবং ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ইফফাত আ’রা নির্বাচিত হয়েছেন।

মনোনীত গবেষক বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলাম বলেন, এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত গৌরবের একটা বিষয়। আমরা এটা নিয়ে খুবই আনন্দিত। আমাদের মোট ১২জন শিক্ষক ৬টি প্রজেক্টের আওতায় কাজ করবেন। এতে একজন প্রধান গবেষক এবং তার সঙ্গে একজন সহকারী গবেষক হিসেবে কাজ করবেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান বলেন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের জন্য এটা অনেক ভালো একটা খবর। যে শিক্ষকরা নির্বাচিত হয়েছেন তাদেরকে অভিনন্দন। আমাদের শিক্ষকরা সামনে যেন আরো বেশি বেশি এরকম গবেষণার জন্য মনোনীত হন সেই প্রত্যাশা করি।
উল্লেখ্য, ১৯৭৭-৭৮ অর্থবছর থেকে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের অধীনে ‘বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি’ বিষয়ক গবেষণার জন্য এ অনুদান প্রদান কার্যক্রম শুরু হয়।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন