আফগান শিক্ষার্থীদের জন্য যুক্তরাজ্যের শিক্ষাবৃত্তি স্থগিত

যুক্তরাজ্য সরকার আফগান শিক্ষার্থীদের জন্য দেয়া শিক্ষাবৃত্তি আপাতত স্থগিত করেছে। আগামী মাস থেকে দেশটিতে নতুন সেশনে শিক্ষাবৃত্তিতে অনেক আফগান শিক্ষার্থীর পড়তে যাওয়ার কথা থাকলেও তা স্থগিত করা হয়েছে।

চেভেনিং শিক্ষাবৃত্তি সারা বিশ্বের শিক্ষার্থীদের জন্য যুক্তরাজ্যে মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জনের সুযোগ দিয়ে থাকে। কিন্তু পররাষ্ট্র দপ্তর বলছে, আফগানিস্তানে বর্তমানর কারণে পরিস্থিতি সেখানে অবস্থিত যুক্তরাজ্যের দূতাবাস কাগজপত্র তৈরির কাজটি করতে সক্ষম হচ্ছে না। তবে দেশটির হঠাৎ নেয়া এমন সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছে যুক্তরাজ্যের সাবেক দুজন সংসদ সদস্য।

এটি সম্মানসূচক ও খুব প্রতিযোগিতাপূর্ণ একটি বৃত্তি হিসেবে চেভেনিং শিক্ষাবৃত্তিটি দেয়া হয়।

আফগানিস্তানের যেসব শিক্ষার্থী চলতি বছর বৃত্তিটি পেয়েছিলেন তাদের অনেকেই বলছেন, তারা আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে দূতাবাসে গিয়ে কাগজপত্র প্রস্তুত করতে পারছেন না।

এক শিক্ষার্থী বলেন, চলতি বছর প্রোগ্রামটির ৩৫ জন শিক্ষার্থী এই দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন, যার অর্ধেকই নারী।

২০ বছর পর আফগানিস্তান থেকে যুক্তরাষ্ট্র সেনা প্রত্যাহার করে নেয়ার পর দেশটির বেশিরভাগ অঞ্চলই দখল করে নিয়েছে তালেবান সশস্ত্র গোষ্ঠী।

রাজধানী কাবুল ছাড়া দেশটির বেশিরভাগ প্রাদেশিক রাজধানী দখলে নিয়েছে তালেবান। অবস্থা এখন এমন একটা পর্যায়ে রয়েছে যে, কাবুল দখল করে দেশটির ক্ষমতা নেয়া এখন তালেবানের জন্য সময়ের ব্যাপার মাত্র।

এমন সময় যুক্তরাজ্যের এমন সিদ্ধান্তে অনেকেই দ্বিমত পোষণ করে বিষয়টিকে দেশটির ইচ্ছাকৃত সিদ্ধান্ত বলে বর্ণনা করেছেন।

যুক্তরাজ্যের কনজারভেটিভ দলের সাবেক এমপি ডেভিড লিডিংটন টুইটারে বলেন, আফগান শিক্ষার্থীদের জন্য বৃত্তি স্থগিত করা নীতিগতভাবে ভুল, একই সঙ্গে এটি যুক্তরাজ্যের ইচ্ছাকৃত সিদ্ধান্ত।