আফগানিস্তানে ৩০ কোটি ডলারের বিশেষ সহায়তা দিচ্ছেন বাইডেন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আফগানিস্তানের জন্য ১০ কোটি ডলারের জরুরি সাহায্য তহবিল ঘোষণা করেছেন। স্থানীয় সময় গতকাল শুক্রবার হোয়াইট হাউস থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এ ছাড়া আফগানিস্তানে পরিষেবা এবং বিভিন্ন সামগ্রী খাতে ব্যবহারের জন্য আরও ২০ কোটি ডলারের জরুরি সহায়তা অবমুক্ত করা হয়েছে।

এই অর্থ আফগানিস্তানে ক্রমবর্ধমান শরণার্থী সমস্যা মোকাবিলা এবং মার্কিন অনুগত আফগানদের আমেরিকায় বিশেষ ইমিগ্র্যান্ট ভিসায় নিয়ে যেতে ব্যবহার করা হবে।
বাইডেন আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছেন। আগামী ৩১ আগস্টের মধ্যেই সব সেনা প্রত্যাহার করা হবে। এর মধ্যেই সেনা প্রত্যাহারের চূড়ান্ত প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ক্ষমতায় আসার পর বাইডেন ১১ সেপ্টেম্বরের আগেই আফগানিস্তান থেকে সেনা সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দেন।

আফগানিস্তানে একের পর এক সীমান্ত এলাকা তালেবানদের দখলে যাচ্ছে। গত দুই দশক আমেরিকার হয়ে কাজ করা আফগানরা এখন তালেবানদের হামলার ঝুঁকিতে পড়েছে। এসব ঝুঁকিতে থাকা মানুষকে আমেরিকায় বিশেষ অভিবাসন ভিসায় স্থানান্তরের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ঝুঁকির আশঙ্কায় কয়েক হাজার আফগান মার্কিন অভিবাসনের জন্য আবেদন জানিয়েছে। আমেরিকায় আশ্রয় নিতে ইচ্ছুক এমন আফগানদের প্রথম দলটি আগামী মাসের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছার কথা। প্রথমে তাদের ভার্জিনিয়ার ফোর্টলি সামরিক ঘাঁটিতে রাখা হবে। সেখানে তাদের অভিবাসন আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

পেন্টাগন থেকে জানানো হয়েছে, প্রথম দফায় প্রায় ২ হাজার ৫০০ আফগানকে ফোর্টলি স্থাপনায় নিয়ে আসা হচ্ছে। ভার্জিনিয়া ছাড়া আফগানিস্তান ত্যাগ করতে ইচ্ছুক লোকজনের স্থায়ী অভিবাসন প্রক্রিয়া করা পর্যন্ত হাজার হাজার আফগান পরিবারকে রাখার জন্য স্থান খোঁজা হচ্ছে বাইডেন প্রশাসনের পক্ষ থেকে। আমেরিকার অভ্যন্তরে বা বাইরের কোনো মিত্র দেশে প্রথমে স্থানান্তর করে অভিবাসন আবেদন প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে তাঁদের আমেরিকায় নিয়ে আসা হবে।
আফগানিস্তানে একের পর এক সীমান্ত এলাকা তালেবানদের দখলে যাচ্ছে। গত দুই দশক আমেরিকার হয়ে কাজ করা আফগানরা এখন তালেবানদের হামলার ঝুঁকিতে পড়েছে। এসব ঝুঁকিতে থাকা মানুষকে আমেরিকায় বিশেষ অভিবাসন ভিসায় স্থানান্তরের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ঝুঁকির আশঙ্কায় কয়েক হাজার আফগান মার্কিন অভিবাসনের জন্য আবেদন জানিয়েছে। আমেরিকায় আশ্রয় নিতে ইচ্ছুক এমন আফগানদের প্রথম দলটি আগামী মাসের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছার কথা। প্রথমে তাদের ভার্জিনিয়ার ফোর্টলি সামরিক ঘাঁটিতে রাখা হবে। সেখানে তাদের অভিবাসন আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

পেন্টাগন থেকে জানানো হয়েছে, প্রথম দফায় প্রায় ২ হাজার ৫০০ আফগানকে ফোর্টলি স্থাপনায় নিয়ে আসা হচ্ছে। ভার্জিনিয়া ছাড়া আফগানিস্তান ত্যাগ করতে ইচ্ছুক লোকজনের স্থায়ী অভিবাসন প্রক্রিয়া করা পর্যন্ত হাজার হাজার আফগান পরিবারকে রাখার জন্য স্থান খোঁজা হচ্ছে বাইডেন প্রশাসনের পক্ষ থেকে। আমেরিকার অভ্যন্তরে বা বাইরের কোনো মিত্র দেশে প্রথমে স্থানান্তর করে অভিবাসন আবেদন প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে তাঁদের আমেরিকায় নিয়ে আসা হবে।