আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন ধোনি

গুঞ্জনটা শোনা যাচ্ছিলো দীর্ঘদিন ধরেই। অবশেষে সত্যি সত্যিই অবসরের ঘোষণা দিয়ে ফেললেন ভারতের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক মাহেন্দ্র সিং ধোনি।

গেল বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল থেকে ছিটকে যাবার পর থেকেই একেবারে পর্দার আড়ালে চলে যান ভারতীয় কিংবদন্তি। অনেকেই এরমধ্যে তার অবসর নিয়ে নানা কথা বলেছেন। তার সাবেক সতীর্থরাও বেশ কয়েকবার বলেছেন, ভারতের হয়ে শেষ ম্যাচ খেলে ফেলেছেন ধোনি। তবে এ বিষয়ে এতদিন মুখ খোলেননি তিনি। অবশেষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইন্সটাগ্রামে নিজের অবসরের কথা জানিয়ে দেন এই কিংবদন্তি।

অবসরের ঘোষণা দিয়ে পুরো ক্যারিয়ারজুড়ে সমর্থন দেয়ার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানান ধোনি। একইসঙ্গে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন তিনি, যেটি মূলত তার ক্যারিয়ারের সারসংক্ষেপ। অভিষেক থেকে শেষপর্যন্ত সবই আছে সেখানে। আছে বিশ্বকাপ ট্রফিটা তুলে ধরার চিত্রও।

ভারতের সর্বকালের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক তিনি। ভারতীয়দের হয়ে বিশ্বকাপসহ তিনটি মেগা টুর্নামেন্টজয়ী একমাত্র অধিনায়ক ‘ক্যাপ্টেন কুল’। কেবল তাই নয়, অসংখ্য ম্যাচে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ার স্বীকৃতিস্বরূপ খ্যাতি পেয়েছেন মিস্টার ফিনিশার হিসেবে।

২০০৪ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেক হয় ধোনির। গেল বিশ্বকাপে সবশেষ ম্যাচ খেলেছেন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে।

ভারতের হয়ে ৩৫০টি ওয়ানডে খেলেছেন ধোনি। ৫০ এরও বেশি গড়ে সংগ্রহ করেছেন ১০,৭৭৩ রান। ৯০ টেস্টে তার সংগ্রহ ৪৮৭৬ রান।

টেস্ট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছিলেন আচমকাই। ওয়ানডে থেকেও হুট করেই বিদায় বলে দিলেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এসেছিলেন শুন্য হাতে। পুরো ক্যারিয়ারটাকে রাঙিয়েছেন। ভারতীয় ক্রিকেটে বর্ণাঢ্য একটা অধ্যায় লিখে আবার একেবারে অনাড়ম্বরভাবে বিদায় নিলেন ভারতীয় কিংবদন্তি।

কেবল ভারতের হয়েই নয়, রোহিত শর্মার পর আইপিএলেরও সবচেয়ে বেশিবার ট্রফি জিতেছেন ধোনি।

আরো একবার সেই আইপিএলে খেলতে যাওয়ার আগেই অবশেষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিলেন ক্রিকেটের সর্বকালের অন্যতম সেরা অধিনায়ক মাহেন্দ্র সিং ধোনি।