আইপিএলে দলই পেলেন না সাকিব

সাকিব আল হাসানের আইপিএল অভিজ্ঞতার ঝুলি বেশ সমৃদ্ধ। দুইবার তিনি জিতেছেন শিরোপা। ব্যাট ও বল হাতে যেখানে অবদান রেখেছেন সাকিব। কিন্তু আইপিএল-২০২২ এর নিলামের প্রথম দিনে তাকে তোলা হলে আগ্রহ দেখায় না কেউ। বিশ্বেসেরা অলরাউন্ডার থাকেন অবিক্রিত।

দ্বিতীয় দিনে আবার তোলা হয় তাকে। এবারও তাকে কিনতে আগ্রহ দেখায় না কেউ। আইপিএলে দল বাড়লেও বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার অবিক্রিতই থাকলেন। তার ভিত্তিমূল্য ছিল ২ কোটি রুপি।

সাকিব ২০১১ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত দুটি দলের হয়ে আইপিএলের ৯ আসরে খেলেছেন। মাঝে কেবল ২০১৩ ও ২০২০ সালের আসরে খেলতে পারেননি নিষিদ্ধ থাকায়।

৯ আসরে সব মিলিয়ে সাকিব খেলেন ৭১ ম্যাচ। ব্যাট করার সুযোগ পান ৫২ ইনিংসে। ১৯.৮৩ গড়ে তিনি রান করেন ৭৯৩টি। ফিফটি মাত্র ২টি। সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত সংগ্রহ ৬৬ রান। শূন্যরানে আউট হয়েছেন ৪ বার। বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন ৭৩টি। আর ছক্কা মেরেছেন ২১টি।

অন্যদিকে বল হাতে নিয়েছেন ৬৩ উইকেট। ওভার প্রতি রান দিয়েছেন ৭.৪৪ করে। ৪ কিংবা ৫ উইকেটের দেখা পাননি একবারও।

২০১২ সালে ও ২০১৪ সালে কলকাটা নাইট রাইডার্সের হয়ে শিরোপা জিতেছিলেন তিনি।