আইপিএলের সেরা পাঁচ অধিনায়ক

অবশেষে মাঠে গড়াতে যাচ্ছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। তবে করোনা প্রকোপের কারণে এবার ভারতের মাটিতে হচ্ছে না এই আয়োজন। ১৩তম আইপিএল আসর অনুষ্ঠিত হবে দুবাইতে। আইপিএল মানেই যেন এক ধুন্ধুমার কাণ্ড। ব্যাট-বলের লড়াইয়ে জমজমাট আসর। ক্রিকেটখেলুড়ে সব দলের খেলোয়াড়দের মিলনমেলা বসে আইপিএলে। প্রতিটি ম্যাচেই একজন আরেকজনকে ছাড়িয়ে যাওয়ার প্রত্যয় নিয়ে মাঠে নামেন। ব্যাটিং-বোলিং কিংবা ফিল্ডিং সব বিভাগেই নিজেদের সেরাটা দেয়ার দৌড়ে নামেন তারকা খেলোয়াড়রা।

তবে এই প্রতিযোগিতার বাইরে আরও একটি মনস্তাত্ত্বিক লড়াই থাকে। সেটি হলো সেরা অধিনায়ক হবার দৌড়। অধিনায়ক হিসেবে কে হবেন সেরা? এই যোগ্যতাও বড় হয়ে ওঠে কখনো কখনো। গেল ১২টি আসরে কোন কোন অধিনায়ক আছেন সেরার তালিকায়? আইপিএলের সেরা অধিনায়কের তালিকায় আছেন যে পাঁচজন- সেটি দেখে নেয়া যাক।

১. মাহেন্দ্র সিং ধোনি (চেন্নাই সুপার কিংস):
বিশ্বের অন্যতম সেরা অধিনায়কের তালিকায় যে নামটি অবধারিতভাবে আসে সেটি এম এস ধোনি। অধিনায়ক হিসেবে ভারতকে যেমন এনে দিয়েছেন সর্বোচ্চ সাফল্য ঠিক তেমনি আইপিএলের আসরেও রেখেছেন সাফল্যের চিহ্ন। আইপিএলে অধিনায়কত্ব করেছেন চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে। প্রথম আসরেই রানার্সআপ হয়েছিল ক্লাবটি। এরপর ধোনির হাত ধরে শিরোপা জিতেছে তিন আসরে। তাই ধোনি যে অধিনায়ক হিসেবে সফল সেটি কাগজে কলমে প্রমাণিত। আইপিএলে ১৭৪ ম্যাচে অধিনায়কত্ব করে ১০৪টি ম্যাচে জয় পেয়েছেন ধোনি। তার ম্যাচ জয়ের গড় ৬০ দশমিক ১১।

২. গৌতম গম্ভীর (কলকাতা নাইট রাইডার্স):
বলিউড অভিনেতা শাহরুখ খান এবং অভিনেত্রী জুহি চাওলার হাত ধরে আইপিএলে নাম লেখায় কলকাতা নাইট রাইডার্স। আর এই দলের দায়িত্বভার পরে ভারতীয় ব্যাটসম্যান গৌতম গম্ভীরের হাতে। প্রথম তিন আসরে আশানুরূপ ফল করতে পারেনি কলকাতার দলটি। তবে ২০১২ ও ২০১৪ আসরে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি ঘরে তোলে তারা। অধিনায়ক হিসেবে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১২৯ ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন গম্ভীর। যার মধ্যে জয়ের হার ৫৫ দশমিক ৪২ শতাংশ। আইপিএলে সেরা অধিনায়কের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন এই ভারতীয়।

৩. বিরাট কোহলি (রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গোলর):
শুধু ব্যাটসম্যান হিসেবেই নয়, অধিনায়ক হিসেবেও সুনাম আছে বিরাট কোহলির। ভারতীয় দলের সাফল্যে একের পর এক কারিশমা দেখাচ্ছেন তিনি। তবে আইপিএলের সেরা অধিনায়কের তালিকাতেও আছেন তিনি। নিজ দল রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গোলরকে ফাইনালে তুলেছিলেন ২০১৬ সালে। ট্রফি জিততে না পারার আক্ষেপ থাকলেও সেরা অধিনায়কের তালিকায় আছেন তিনি। ১১০ ম্যাচে অধিনায়কত্ব করে জয় পেয়েছেন ৪৯টি ম্যাচে। আর হেরেছেন ৫৫টি ম্যাচ। এছাড়া ২টি ম্যাচ টাই এবং ৪টি ম্যাচ ফল আসেনি। তার নামের পাশে জয়ের হার শতকরা ৪৭ দশমিক ১৬।

৪. রোহিত শর্মা (মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স):
আইপিলের সেরা অধিনায়কের তালিকায় চতুর্থ স্থানে আছেন রোহিত শর্মা। ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হিসেবে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক রোহিত শর্মা। এই আসরে সবমিলিয়ে যারা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে চারবার। ১০৪ ম্যাচ অধিনায়কত্ব করে ৬০ ম্যাচে জয় পেয়েছেন রোহিত। বিপরীতে হেরেছেন ৪২টি ম্যাচে।

৫. অ্যাডাম গিলক্রিস্ট (ডেকান চার্জার্স):
আইপিএলে সেরা অধিনায়কের তালিকায় একমাত্র বিদেশি অ্যাডাম গিলক্রিস্ট। ৭৪টি ম্যাচ অধিনায়কত্ব করেছেন এই অজি উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান। প্রথম আসরে গ্রুপ পর্বেই বাদ পড়েছিল। কিন্তু দ্বিতীয় আসরে গিলক্রিস্টের হাত ধরে চ্যাম্পিয়ন হয় তার দল ডেকান চার্জার্স দলটি। অধিনায়ক হিসেবে গিলক্রিস্টের ম্যাচের জয়ের হার ৪৭ দশমিক ২৯।