আইনজীবীদের বার কাউন্সিল থেকে লাখ টাকা করে দেয়ার আহ্বান সাবেক ভাইস চেয়ারম্যানের

করোনা সংক্রমণের দুর্যোগকালে বাংলাদেশ বার কাউন্সিল থেকে দেশের সব আইনজীবীকে এক লাখ টাকা করে থোক বরাদ্দ দেয়ার দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন।

বুধবার (২১ এপ্রিল) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, ‘গত দুই বছর করোনাভাইরাসের কারণে আদালতে মামলা করার সুযোগ পাচ্ছেন না আইনজীবীরা। চলমান লকডাউনে অর্থনৈতিকভাবে সংকটের মধ্যে আছেন তারা।’

তিনি বলেন, ‘বিভিন্ন সময় ক্ষতিগ্রস্ত আইনজীবীদের অনুদান দিয়েছে বাংলাদেশ বার কাউন্সিল। আমি মনে করি, করোনা সংক্রমণের এই দুর্যোগে বাংলাদেশ বার কাউন্সিল থেকে সকল আইনজীবীকে এক লাখ টাকা করে থোক বরাদ্দ দেয়া উচিত।’

‘বার কাউন্সিল নিজস্ব ফান্ড থেকে এই অর্থ দিতে পারে। আর ফান্ডের সমস্যা হলে প্রয়োজনে সরকারের কাছ থেকে অর্থ সহায়তা নিয়ে আইনজীবীদের পাশে দাঁড়াতে পারে বার কাউন্সিল।’

খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, ‘এই চরম দুরবস্থায় বাংলাদেশ বার কাউন্সিলকে আইনজীবীদের পাশে দাঁড়াতে হবে। তা না হলে বার কাউন্সিল অর্থহীন হয়ে পড়ে।’

‘তাই অবিলম্বে প্রত্যেক আইনজীবীকে এক লাখ টাকা করে থোক বরাদ্দ দেয়ার জন্য আমি বার কাউন্সিলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। এছাড়া হাইকোর্টের যারা আইনজীবী, তাদেরকে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ফান্ড থেকে অর্থ বরাদ্দ দেয়ার দাবি জানাচ্ছি।’